Skip to content

ইউক্রেনে রাশিয়ার জয় অনিবার্য: পুতিন | আন্তর্জাতিক

ইউক্রেনে রাশিয়ার জয় অনিবার্য: পুতিন | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

ইউক্রেন যুদ্ধে রাশিয়া যে জয়ী হবে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই বলে মন্তব্য করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বুধবার (১৮ জানুয়ারি) তিনি এই মন্তব্য করেন। খবর রয়টার্সের।

সেন্ট পিটার্সবুর্গে শ্রমিকদের একটি কারখানায় দেয়া ভাষণে পুতিন বলেন, ইউক্রেনে জয় নিশ্চিত, এই বিষয়ে আমার কোনো সন্দেহ নেই। রুশ নাগরিকদের সংহতি ও ঐক্য, আমাদের যোদ্ধাদের সাহস ও বীরত্ব এবং অবশ্যই সামরিক শিল্পখাতের পরিশ্রমে জয় নিশ্চিত হবে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা শিল্পের প্রশংসা করে তিনি বলেন, আমাদের নির্ভর করার মতো কিছু আছে। জয় যে আমাদের হবে সে বিষয়ে এটি আমাদের অনুপ্রেরণা জোগায়।

মাত্র এক সপ্তাহ আগে ইউক্রেনে রুশ সেনাবাহিনীর শীর্ষ কমান্ডার বদলেছেন পুতিন। গত বছর রণক্ষেত্রে একাধিক ব্যর্থতার পর এই সিদ্ধান্ত নেয় রাশিয়া।

আরও পড়ুন: ইউক্রেনে ন্যাটোর সঙ্গে লড়াই করছে রাশিয়া: পুতিন সহযোগী

এদিকে মস্কোতে পৃথক এক সংবাদ সম্মেলনে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, মস্কো এখনও ইউক্রেনে শান্তির জন্য কোনো বাস্তবসম্মত প্রস্তাব দেখতে পায়নি এবং ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির পরামর্শগুলো অযৌক্তিক।

তিনি বলেন, মস্কো পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে সংঘাত নিয়ে আলোচনা করতে এবং যেকোনো গুরুতর প্রস্তাবে সাড়া দিতে প্রস্তুত, তবে যেকোনো আলোচনার জন্য রাশিয়ার ব্যাপক নিরাপত্তা উদ্বেগ মোকাবিলা করা প্রয়োজন।

ল্যাভরভ ইউক্রেন এবং রাশিয়ার সীমান্তের কাছাকাছি অন্যান্য দেশগুলো থেকে তাদের ‘সামরিক অবকাঠামো’ সরিয়ে নেয়ার জন্য ন্যাটোকে আবারও আহ্বান জানিয়েছেন।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জেলেনস্কির সঙ্গে অবাস্তব বিষয়ে কোন আলোচনা হতে পারে না।

আরও পড়ুন: আমরা ন্যাটোর ডি-ফ্যাক্টো সদস্য: ইউক্রেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী

ল্যাভরভ গত নভেম্বরে ইউক্রেনের নেতার ১০-দফা পরিকল্পনাকে ‘সম্পূর্ণ অযৌক্তিক উদ্যোগ’  উল্লেখ করেন। তিনি বলেন,  ইউক্রেনীয় ইস্যুতে রাশিয়া এবং পশ্চিমাদের মধ্যে আলোচনার সম্ভাবনার জন্য আমরা যেকোনো গুরুতর প্রস্তাবের প্রতিক্রিয়া জানাতে প্রস্তুত থাকব। (কিন্তু) আমরা এখনও কোনো গুরুতর প্রস্তাব দেখতে পাচ্ছি না, যে আমরা সেগুলো বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে প্রস্তুত থাকব।

তিনি বলেন, কিয়েভের অংশগ্রহণ ছাড়া পশ্চিমারা ইউক্রেন ইস্যুতে আলোচনায় বসবে না বলে দাবি করছে তা একেবারে বাজেকথা। কারণ ইউক্রেনের সব সিদ্ধান্ত নিচ্ছে পশ্চিমারা।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *