Skip to content

ইউক্রেনে রাশিয়ার নতুন যুদ্ধকৌশল | আন্তর্জাতিক

ইউক্রেনে রাশিয়ার নতুন যুদ্ধকৌশল | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

ইউক্রেনে ৪৫ মাইল দীর্ঘ পরিখা খুড়ছে রাশিয়ার সেনাবাহিনী। ইউক্রেনীয় বাহিনীর পাল্টা হামলার প্রস্তুতির মধ্যে ব্যাপক প্রতিরক্ষা কৌশলের অংশ হিসেবে দীর্ঘ ওই পরিখা খোড়া হচ্ছে। যা মহাকাশ থেকেও দেখা যাচ্ছে বলে জানিয়েছে ইউক্রেনীয় বিশেষজ্ঞরা।

পরিখা খনন যুদ্ধের এক প্রাচীন কৌশল। ইউক্রেন যুদ্ধে এবার সেই কৌশলই প্রয়োগ করতে যাচ্ছে রুশ নেতা ভ্লাদিমির পুতিনের সেনারা। দ্য ইউক্রেনিয়ান সেন্টার ফর জার্নালিস্টিক ইনভেস্টিগেশনসের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের যুদ্ধবিধ্বস্ত জাপোরিঝিয়া অঞ্চলজুড়ে বিশাল ওই পরিখা খোড়া হচ্ছে।

রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, পরিখা দিয়ে রাশিয়ার সুরক্ষিত এলাকাগুলো সেন্টিনেল-২ স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া একাধিক ছবি দেখে শনাক্ত করা হয়েছে। পরিখার অবস্থান সেমেনোভকা নামক গ্রামের নিকটেই। মেলিতোপোলের কেন্দ্র থেকে এর দূরত্ব প্রায় নয় কিলোমিটার।

সেন্টিনেল-২ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে তোলা সাম্প্রতিক ছবিগুলোতে মনুষ্য নির্মিত ঘাট রয়েছে যা মেরিনিভকা গ্রামের বাইরের একটি ক্ষেত্রকে সেমেনিভকা গ্রামের এক প্রান্তের সাথে সংযুক্ত করেছে। স্যাটেলাইট তথ্য-উপাত্ত বলছে, এই পরিখা নির্মাণ শুরু হয় গত বছরের (২০২২) সেপ্টেম্বর মাসের শুরুর দিকে।

আরও পড়ুন: মে মাসেই শেষ হয়ে যাবে ইউক্রেনের আকাশ প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্র

ইউক্রেন অভিযানে ইউক্রেনের বিশাল একটা এলাকা দখল করে নিয়েছে রাশিয়া। এর মধ্যে গত বছরই অন্তত চারটি এলাকা নিজ ভূখণ্ডের সাথে একীভূত করে নেয় মস্কো। একীভূত করা ওই চার অঞ্চলের একটি জাপোরিঝিয়া অবলাস্ট। এই জাপোরিঝিয়ার প্রায় এক তৃতীয়াংশ অঞ্চলই পরিখা দিয়ে ঘিরে ফেলেছে রুশ সেনারা।

এক বছরেরও বেশি সময় ধরে চলছে ইউক্রেন সংঘাত। এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় লড়াইটা চলছে ইউক্রেনের দোনবাস অঞ্চলের বাখমুত শহরে। শহরটির ৭৫ ভাগই রুশ সেনাদের হাতে বলে জানিয়েছেন ওই অঞ্চলের রুশপন্থি প্রধান নেতা দেনিস পুশিলিন।

গত কয়েক মাস ধরে বাখমুত শহর ছিল রাশিয়ার সেনাদের হামলার প্রধান লক্ষ্যবস্তু। এই শহরের ওপর রাশিয়া ব্যাপকভাবে হামলা চালিয়ে শহরটি দখলের চেষ্টা করলেও তাতে পুরোপুরি সফল হতে পারেনি তারা।

আরও পড়ুন: ইউরোপকে অবশ্যই যুক্তরাষ্ট্র নির্ভরশীলতা কমাতে হবে: ম্যাক্রোঁ

দীর্ঘদিন ধরে ইউক্রেনের সেনারা এ শহরের মধ্যে অবরুদ্ধ অবস্থায় প্রতিরোধ চালিয়ে যাচ্ছে। যুদ্ধে নিজেদের শেষ চেষ্টা হিসাবে শুধু গভীর পরিখা খনন করেছে সেনারা। যুদ্ধ বিশেষজ্ঞদের কেউ কেউ বলছেন, ইউক্রেনের রণাঙ্গনের পরিখা যুদ্ধের এমন দৃশ্য গোটা পৃথিবীকে স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে শতবর্ষ আগে ঘটে যাওয়া প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ভয়ংকর স্মৃতি।

তারা বলছেন, কয়েক মাসেরও বেশি সময় ধরে চলা বাখমুত যুদ্ধে মাথাচাড়া দিয়ে ওঠা রণকৌশলে ফুটে উঠেছে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ছায়া। বাখমুতের এ লড়াইয়ের মাধ্যমে ইউরোপে ফিরেছে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পরিখা ভয়াবহতাও।

 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *