Skip to content

ইরানে সামরিক ঘাঁটিতে ড্রোন হামলায় ইসরাইল জড়িত | আন্তর্জাতিক

ইরানে সামরিক ঘাঁটিতে ড্রোন হামলায় ইসরাইল জড়িত | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

ইরানের সামরিক ঘাঁটিতে ড্রোন হামলার পেছনে ইসরাইল জড়িত বলে দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের এক কর্মকর্তা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই মার্কিন কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেছেন, রোববারের (২৯ জানুয়ারি) এ ঘটনায় ইসরালই জড়িত।

এদিকে ইসফাহানের ওই সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালানো ড্রোনগুলোকে ধংসের দাবি করেছে ইরান। তারা আরও জানিয়েছে, এতে কেউ হতাহত বা গুরুতর কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। 

 

তবে রয়টার্স জানিয়েছে, ইরানের এ দাবির সত্যতা স্বাধীনভাবে নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি। এদিকে ইসরাইলের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করেননি। 

 

ইসরাইল দীর্ঘদিন ধরে বলে আসছে কূটনৈতিকভাবে তেহরানের পারমাণবিক অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি বন্ধ করতে ব্যর্থ হলে তারা ইরানের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে ইচ্ছুক। তবে এ ব্যাপারে ইরান কখনই কোন মন্তব্য করেনি। 

 

আরও পড়ুন: ইরানের সামরিক ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা

 

পেন্টাগনের মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল প্যাট্রিক রাইডার জানান, কোন মার্কিন সামরিক বাহিনী ইরানে চালানো হামলায় জড়িত ছিল না। তবে এর বেশি আর কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি তিনি।

 

মার্কিন কর্মকর্তারা ওই হামলার পিছনে ইসরাইলের ভূমিকার দিকে ইঙ্গিত করছিলেন। বেশ কয়েকটি অজ্ঞাত সূত্রের বরাত দিয়ে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল ওই হামলায় ইসরাইলের সম্পৃক্ততা নিয়ে প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

 

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে মার্কিন এক কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, এতে ইসরাইল জড়িত ছিল বলে মনে হচ্ছে। অন্য বেশ কজন মার্কিন কর্মকর্তা এ নিযে কোন মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। তারা শুধু এটা বলেছেন, হামলার পেছনে ওয়াশিংটনের কোনো ভূমিকা নেই।

 

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমিরাবদুল্লাহিয়ান ড্রোন হামলাকে ‘কাপুরুষোচিত’ বলে অভিহিত করেছেন। যদিও দেশটি আনুষ্ঠানিকভাবে কাউকে দায়ী করেনি।  

 

তবে ইরানের রাষ্ট্রীয় টিভিতে দেশটির একজন আইনপ্রণেতা হোসেইন মির্জাইয়ের দাবি করেছেন, এ হামলার পিছনে ইসরাইলের হাত ছিল বলে যথেষ্ট ধারণা রয়েছে।

 

হোসেইন মির্জাইয়ের বক্তব্য সত্যি হলে, বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর নেতৃত্বে ইসরাইলের ইতিহাসে সবচেয়ে ডানপন্থি সরকার ক্ষমতায় আসার পর ইরানের ওপর এটিই প্রথম ইসরাইলি হামলা।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *