Skip to content

ককটেল বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণে মা-ছেলে দগ্ধ | বাংলাদেশ

ককটেল বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণে মা-ছেলে দগ্ধ | বাংলাদেশ

<![CDATA[

চাঁপাইনবাবগঞ্জের জিয়ানগর এলাকায় বসতবাড়িতে ককটেল বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণের ঘটনায় মা-ছেলেসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। রোববার (২৩ অক্টোবর) বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার এসআই জালাল উদ্দিন বাদী হয়ে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও নাশকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে শনিবার রাতে পৌনে নয়টার দিকে জিয়ানগর এলাকায় মামলার প্রধান আসামি শহিদুল ইসলাম, তার মা ফাহমিনা বেগম এবং বিটলু নামে এক ব্যক্তি ককটেল তৈরি ও বিস্ফোরক মজুদ করেছিল। এ সময় একটি  ককটেল বিস্ফোরণ ঘটলে তাহমিনা ও ছেলে শহীদুল গুরুতর দগ্ধ হন। পরে স্থানীয়রা মা ও ছেলেকে উদ্ধার করে প্রথমে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করান। চিকিৎসকদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় শহিদুল ইসলাম, ফাহমিনা, বিল্টুসহ অজ্ঞাতনামা আরও দুই থেকে তিন জনের নামে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

জানা যায়, এ মামলার প্রধান আসামি শহিদুল ইসলামের নামে মোট সাতটি মামলা আদালতে বিচারাধীন।

আরও পড়ুন: ককটেল বিস্ফোরণে উড়ে গেল জানালা, দগ্ধ মা-ছেলে

এ বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একে এম আলমগীর জাহান বলেন, ককটেল তৈরি ও বিস্ফোরণের ঘটনায় গুরুতর দগ্ধ মামলার দ্বিতীয় আসামি ফাহমিনা বেগম রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি রয়েছে। এ ছাড়া শহিদুল ও বিল্টুকে গ্রেফতার করতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, শনিবার (২২ অক্টোবর) রাত পৌনে ৯টার দিকে পৌর এলাকার উদয়ন মোড়-জিয়ানগর এলাকায় ককটেল বানাতে গিয়ে তাহমিনা ও তার ছেলে শহিদুল দগ্ধ হয়। এ সময় বিকট শব্দে বিস্ফোরণে ঘরের জানালা উড়ে যায় ও আসবাবপত্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়। গুরুতর দগ্ধ হন মা-ছেলে উভয়ে। হাসপাতালে যাওয়ার মাঝপথে অ্যাম্বুলেন্স থেকে নেমে দগ্ধ অবস্থায় পালিয়ে যান শহিদুল।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *