Skip to content

কানাডায় একের পর এক মসজিদে হামলা, আতঙ্কে মুসলিম কমিউনিটি | আন্তর্জাতিক

কানাডায় একের পর এক মসজিদে হামলা, আতঙ্কে মুসলিম কমিউনিটি | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

পবিত্র রমজান মাসে কানাডায় কয়েকটি মসজিদে ভাঙচুর, মুসল্লিদের উপর হামলা ও ভয় দেখানোর ঘটনা ঘটেছে। এতে আতংক বিরাজ করছে স্থানীয় মুসলিম কমিউনিটিতে। এরই মধ্যে একটি মসজিদে হামলার ঘটনায় জড়িত একজনকে আটক করেছে কানাডা পুলিশ।

পবিত্র রমজান মাসে হঠাৎ করেই অশান্ত হয়ে উঠেছে কানাডা। গত সপ্তাহে দেশটির বেশ কয়েকটি মসজিদে ভাঙচুর ও মুসল্লিদের উপর হামলার ঘটনা ঘটে।

 

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, অন্টারিওর মারখাম নামক শহরের একটি মসজিদের বাইরে দাঁড়িয়ে ভেতরে থাকা মুসল্লিদের হুমকি দিচ্ছে এক ব্যক্তি। এক পর্যায়ে মসজিদের গেটের কাঁচ ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করছে ও ব্যাপক ভাংচুর চালাচ্ছে।

 

ওই ফুটেজ প্রকাশের পর কানাডার মুসলিম কমিউনিটিতে ওঠে সমালোচনার ঝড়। আতংকিত হয়ে পড়েন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এরই মধ্যে মারখামের মসজিদে হামলা চালানো ব্যক্তিকে আটক করেছে আইনশৃঙ্ক্ষলা রক্ষাবাহিনী।

 

আরও পড়ুন: যুক্তরাষ্ট্রে ফজরের নামাজের সময় ইমামের ওপর ছুরি হামলা

 

এক বিবৃতিতে মন্ট্রিলের পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে, ৩২ বছর বয়সী একজন ওই হামলা চালান। তার বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক হামলা’র অভিযোগ আনা হয়েছে।

 

এদিকে এই হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন কানাডার বাণিজ্যমন্ত্রী মেরি এং। দেশটিতে ইসলামবিদ্বেষীদের জায়গা নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

 

কানাডায় মুসলমানরা এর আগেও হামলার শিকার হয়েছিলেন। ২০১৭ সালে দেশটির কুইবেক সিটির একটি মসজিদে এক হামলাকারী ৬ মুসল্লিকে গুলি করে হত্যা করে।

 

আরও পড়ুন: নামাজরত অবস্থায় ইমামের ওপর হামলার চেষ্টা, যুবক আটক

 

এ ঘটনার পর মুসলমানদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এছাড়াও, ২০২০ সালে টরোন্টোতে একজন পরিকল্পিতভাবে ট্রাকচাপা দিয়ে ৪ জনকে হত্যা করেন।

 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *