Skip to content

নববর্ষে নতুন বইয়ে খুশি রাইসারা | বাংলাদেশ

নববর্ষে নতুন বইয়ে খুশি রাইসারা | বাংলাদেশ

<![CDATA[

মাদারীপুরে বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হয়েছে। রোববার (১ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শহরের পৌর অফিস সংলগ্ন মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে নতুন বই তুলে দেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) ড. রহিমা খাতুন। এ সময় নতুন পেয়ে খুশি শিক্ষার্থীরা। এতে সন্তোষ জানান অভিভাবকরাও।

মাদারীপুরের ৫টি উপজেলায় ৯৭৯টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১ লাখ ৫০ হাজার ১১৯ শিক্ষার্থী রয়েছে। প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষার্থীর জন্য শতভাগ ২৭ হাজার ৪০৪টি বই বিতরণ করা হয়েছে। আর প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীর ৭ লাখ ১৬ হাজার ৮৪৭টি বই চাহিদার বিপরীতে পাওয়া গেছে ৩ লাখ ৭৩ হাজার ১৫০টি বই। যা চাহিদার তুলনায় ৪৮ ভাগ কম।

এদিকে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার জানিয়েছেন, কাগজ সংকটে বই ছাপাতে দেরি হলেও আগামী সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌঁছে দেয়া হবে।

পৌর অফিস সংলগ্ন মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী রাইসা জান্নাত বলে, নতুন বই পেয়ে খুব খুশি লাগছে। আনন্দই আলাদা। নতুন বই পেয়ে সবাই অনেক খুশি।

মাদারীপুর জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নুরুল ইসলাম জানান, এক সপ্তাহের মধ্যে সব শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই তুলে দেয়া হবে। মূলত কাগজ সংকটে ছাপাতে দেরি হয়েছিল। সব ধরনের বই এরইমধ্যে ছাপানোর কাজ শেষ হয়েছে। মন্ত্রণালয়ে কথা বলা হয়েছে। শিগগিরই বই জেলা ও উপজেলায় চলে আসবে।

আরও পড়ুন: সব শিক্ষার্থী নতুন বই পাবে, কেউ বাদ যাবে না: শিক্ষামন্ত্রী

মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, নতুন বছরে নতুন বই পাওয়া মানে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার মান বেড়ে যাওয়া। বছরের প্রথম দিনে এই বই বিতরণ সরকারের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ। যা কয়েক বছর ধরে হয়ে আসছে।

মাদারীপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ওবায়দুর রহমান খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাঈনউদ্দিন, পৌর মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমান খানসহ অনেকেই।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *