Skip to content

পশ্চিম তীরে আবারও বসতি নির্মাণের অনুমতি দিচ্ছে ইসরাইল | আন্তর্জাতিক

পশ্চিম তীরে আবারও বসতি নির্মাণের অনুমতি দিচ্ছে ইসরাইল | আন্তর্জাতিক

<![CDATA[

অধিকৃত পশ্চিম তীরে হাজার হাজার বসতি নির্মাণের অনুমতি দেয়ার পরিকল্পনা পেশ করেছে ইসরাইল সরকার। বসতি সম্প্রসারণ না করতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চাপ থাকা সত্ত্বেও ইসরাইল এমন পদক্ষেপ নিচ্ছে।

সোমবার (১৯ জুন) বার্তাসংস্থা রয়টার্সের এক প্রদিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পশ্চিম তীরে বসতি সম্প্রসারণের পদক্ষেপকে ওয়াশিংটন ফিলিস্তিনের সঙ্গে শান্তির পথে বাধা হিসেবেই দেখে। 

 

আগামী সপ্তাহে ইসরাইলের সুপ্রিম প্ল্যানিং কাউন্সিলের বৈঠক হবে। বৈঠকের আলোচ্যসূচিতে পশ্চিম তীরের বিভিন্ন স্থানে ৪ হাজার ৫৬০টি হাউজিং ইউনিট স্থাপনের অনুমোদন দেয়ার পরিকল্পনা রাখা হয়েছে।

 

যদিও চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে ১ হাজার ৩৩২টি হাউজিয় ইউনিট। বাকিগুলো এখনও প্রাথমিক ছাড়পত্রের প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছে।

 

আরও পড়ুন: ২৫৪ কিলোমিটার ফাইবার অপটিক কেবল নির্মাণ করবে ইসরাইল

 

ইসরাইলের অর্থমন্ত্রী বেজালেল স্মোট্রিচ বলেন, আমরা বসতি স্থাপন করে যাব এবং ওই ভূখণ্ডে ইসরাইলি প্রভাব প্রতিপত্তি বাড়াব। 

 

১৯৭৬ সালের মধ্যপ্রাচ্য যুদ্ধে ইসরাইলের দখল করে নেয়া পশ্চিমতীরে বসতি স্থাপনকে বেশিরভাগ দেশই অবৈধ বলে বিবেচনা করে। ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংঘাতের অন্যতম মূল কারণও হচ্ছে সেখানে ইহুদি বসতি স্থাপন।

 

ফিলিস্তিনিরা পশ্চিম তীর এবং গাজা উপত্যকা নিয়ে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে চায়, যার রাজধানী হবে পূর্ব জেরুজালেম। তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উদ্যোগে শুরু হওয়া শান্তি আলোচনা ২০১৪ সাল থেকে থমকে আছে।

 

আরও পড়ুন: ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে ফের প্রাণ গেল এক ফিলিস্তিনির

 

এদিকে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর বলেছে, তারা ইসরাইলের এই পদক্ষেপে ‘গভীরভাবে উদ্বিগ্ন’। একই সঙ্গে ইসরাইলকে  শান্তি আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছে।

 

পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার এক বিবৃতিতে বলেছেন, দীর্ঘদিনের নীতি অনুযায়ী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এমন একতরফা পদক্ষেপের বিরোধিতা করে যা একটি দ্বি-রাষ্ট্রীয় সমাধান অর্জন করা আরও কঠিন করে তোলবে এবং শান্তির পথে বাধা হয়ে দাঁড়াবে।

 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *