Skip to content

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি | বাংলাদেশ

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি | বাংলাদেশ

<![CDATA[

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ নগরবাসীর মাঝে স্বস্তি আনল বৃষ্টি। শনিবার (১৭ জুন) সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে ঢাকায় ঝুম বৃষ্টি শুরু হয়।

বেশ কিছু দিন ধরে বিরক্তিকর গরমের মধ্যে দিন পার হচ্ছিল রাজধানীবাসীর। একদিকে বাইরে বের হলে তাপপ্রবাহের আঁচে জ্বালা পোড়া আর বর্ষার আগমনে বাতাসে প্রচুর জলীয় বাষ্পের কারণে ঘরেও ঘাম ঝরছে সব বয়সীদের। এর মধ্যে টানা দুই দিন বৃষ্টিতে কিছুটা গরম কমেছে।

 

হঠাৎ বৃষ্টি জনমনে স্বস্তি আনলেও কিছুটা বিপাকে পড়তে হয় কর্মজীবীদের। অনেকে বিকেলে কাজে বের হয়েও কিছুটা বিপাকে পড়েন।

 

বেসরকারি চাকরিজীবী বিশ্বজিৎ দাস মতিঝিলের অফিস থেকে উত্তরার বাসায় ফেরার পথে কারওয়ান বাজারে আটকা পড়েন। তিনি বলেন, এত বৃষ্টিতে বাইক চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তাই শেডে অপেক্ষা করছি। বৃষ্টি কমলে বাসায় ফিরবো। একটু ভোগান্তিতে পড়লেও কয়েক দিনের বিরক্তিকর গরম থেকে মুক্ত পেয়েছি।

 

বসুন্ধরা শপিং কমপ্লেক্সে এসেছিলেন ফেরদৌসী বেগম। তিনি জানান, শপিং করে বের হতেই বৃষ্টি শুরু হয়। ফার্মগেটে যাবো। কিন্তু রিকশাও পাচ্ছি না। তবে গরমের মধ্যে এমন বৃষ্টিতে ভালোই লাগছে।

 

আরও পড়ুন: ৮০ কিমি বেগের ঝড়ের পূর্বাভাস, ১১ জেলায় হুঁশিয়ারি সংকেত

 

এদিকে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, শনিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা সব বিভাগেই অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ সময় সারা দেশেই তাপমাত্রা কমবে।

 

এ ছাড়া রাত ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য দেয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, রংপুর, দিনাজপুর, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, ময়মনসিংহ, যশোর, কুষ্টিয়া এবং সিলেট জেলার ওপর দিয়ে পশ্চিম অথবা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। তাই এসব এলাকার নৌবন্দরগুলোকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

 

এ ছাড়া দেশের অন্যান্য জেলার ওপর দিয়ে দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। 

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *