Skip to content

সালমানের জায়গায় আজ হয়তো প্রসেনজিৎ থাকতেন! | বিনোদন

সালমানের জায়গায় আজ হয়তো প্রসেনজিৎ থাকতেন! | বিনোদন

<![CDATA[

আগেও বলিউডে কাজের সুযোগ এসেছিল প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে। সালমান খান অভিনীত ম্যায়নে পেয়ার কিয়া ছবিতে সুযোগ পেয়েছিলেন অভিনেতা। কিন্তু স্বেচ্ছায় ফিরিয়ে দিয়েছিলেন সেই সুযোগ। কিন্তু কেন? অবশেষে গোটা বিষয় নিয়ে প্রায় ৩০ বছর পর মুখ খুললেন বুম্বাদা।

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় অভিনীত প্রথম ওয়েব সিরিজ তাও হিন্দিতে আর কিছুদিনের মধ্যেই মুক্তি পেতে চলেছে। জুবিলি সিরিজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। আর এই সিরিজের মুক্তির আগে তাকে এখন বলি পাড়ায় হামেশাই দেখা যাচ্ছে। যে সিরিজের হাত ধরে তার ওটিটি মাধ্যমে হাতেখড়ি হচ্ছে সেটার প্রচারের জন্য এখন বারবার তাকে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হতে হচ্ছে সেখানেই তিনি নানা কথা ভাগ করে নিচ্ছেন সকলের সঙ্গে। এবার এমন এক কথা তিনি প্রকাশ্যে আনলেন যা সবাইকে রীতিমতো চমকে দিয়েছে। অভিনেতা জানালেন তিনি নাকি বলিউডে প্রথম ব্রেক আজ থেকে প্রায় ৩০ বছর আগে সালমান খানের হিট ছবি ম্যায়নে পেয়ার কিয়া দিয়েই পেয়েছিলেন।

বুম্বাদার কথা অনুযায়ী এই ছবির জন্য তিনিই প্রথম পছন্দ ছিলেন সিনেমা নির্মাতাদের। কিন্তু তিনি সেই ছবি করতে রাজি হলেন না তখন?

উত্তরে অভিনেতা আসল কারণ কিন্তু ভাঙিয়ে বলেন না, বরং বলেন, ‘এসব ছাড়ুন। ভুলে যান, আমরা বরং জুবিলি নিয়ে কথা বলি।’ তিনি আবারও এই প্রসঙ্গে জনসমক্ষে কথা বলতেই সেটা ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়ে যায়। আর হবে নাই বা কেন এই ছবির কারণেই যে বলিউডের ভাইজান ভাইজান হয়ে উঠেছিলেন। পেয়েছিলেন পরিচিতি। বলিউডে জমি শক্ত হয়েছিল তার।’

আরও পড়ুন: অনুপমের ‘অদৃশ্য নাগরদোলার ট্রিপ’

কিন্তু এখন আসল কারণ না বললেও ২০১২ সালে নিউইয়র্ক টাইমসকে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে প্রসেনজিৎ কারণটা প্রকাশ্যে এসেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘আমি তখন আমার বাংলা ছবির ক্যারিয়ারকে নষ্ট করতে চাইনি। সে সময় আমি তিনটি হিন্দি ছবি করেছিলাম। কিন্তু ফ্লপ করেছিল। এরপর আমি কলকাতা এসে অমর সঙ্গী ছবিটা করি আর সেটা হিট করে যায়। আমায় অভিনেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করে। আমি দেখলাম এখানে অনেক কিছু করার আছে। সেসব কিছুকে রিস্কে ফেলে আমি আমার ক্যারিয়ার গড়তে মুম্বাই যেতে চায়নি। তাই আমি ম্যায়নে পেয়ার কিয়া, সাজান ছবির অফার ফিরিয়ে দিই। কিন্তু দুটো ছবিই হিট করেছিল।’

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় জুবিলির প্রচারে হিন্দি ছবির বিষয়ে জানান তার করা শেষ হিন্দি ছবি হল সাংঘাই। এখনও তার সঙ্গে ভাগ্যশ্রীর যোগাযোগ আছে বলেও জানান অভিনেতা।

লক্ষ্য করলে দেখা যাবে গত ১০-১২ বছর অভিনেতা মূল ধারার বাণিজ্যিক ছবির বদলে নিজেকে ভেঙে অন্য ধরনের ছবি, চরিত্র করছেন। নতুন নতুন পরিচালকদের সঙ্গে কাজ করছেন। শিগগিরই মুক্তি পাচ্ছে তার নতুন সিরিজ জুবিলি। এখানে তিনি শ্রীকান্ত রায়ের চরিত্রে অভিনয় করবেন। অন্যদিকে বাংলায় শেষ পাতা থেকে শুরু করে একাধিক ছবির কাজ রয়েছে তার হাতে।

জুবিলি সিরিজে তার সঙ্গে দেখা যাবে অদিতি রাও হায়দারি, অপরশক্তি খুরানা প্রমুখকে। সৌমিক সেন এবং বিক্রমাদিত্য মোতওয়ানে এই সিরিজ পরিচালনা করেছেন। ৭ এপ্রিল মুক্তি পাচ্ছে এটি। দেখা যাবে অ্যামাজন প্রাইম ভিডিওতে।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

]]>

সূত্র: সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *